এবার পুজোয় “চলো হারাই”

এবার পুজোয় “চলো হারাই”

আনন্দ সংবাদ লাইভ:দীর্ঘদিন লকডাউনের পর এখন আললকের পর্ব শুরু হয়েছে।ধীরে,ধীরে ছন্দে ফিরছে শহর।এরই মধ্যে পুজো আসছে।পুজোর আগে পুজোর নতুন বাংলা গান গাইলেন রূপঙ্কর।তবে এবার পুজোয় ট্রাভেল সঙ রেকর্ড করলেন শিল্পী।লকডাউন থেকে আনলক মানুষ ভীষণ ঘরবন্দি।তাই সেই অবস্থা থেকে মুক্তির গান “চলো হারাই”, একটা ট্রাভেল সঙ।গানে,গানে ঘুরে আসতে কোনো বাধা তো নেই। গানটি দ্যা ড্রিমার্স মিউজিক পি .আর এজেন্সি এর প্রথম পুজোর গান।গান লিখেছেন সংস্থার কর্ণধার সুদীপ্ত চন্দ নিজেই।এই প্রথম বার গান লেখা তাঁর।সুর করেছেন অরুণাভ চট্টোপাধ্যায়।কিছুদিন আগে হওয়া “দ্যা মিউজিক ম্যান” প্রতিযোগিতায় অরুণাভ প্রথম হন।ভবিষ্যতের সুরকার নির্বাচনের এই উদ্যোগে সামিল ছিলেন রূপঙ্কর সহ অন্তরা চৌধুরী, সঞ্জয় চৌধুরী,সৌম্য দাশগুপ্ত,সিধু,নিখিল কামাত,পন্ডিত প্রদ্যুৎ মুখোপাধ্যায়, ইন্দ্রজিৎ দে প্রমুখ।এই অনলাইন কনটেস্টে আসা সকল প্রতিযোগীদের মধ্যে প্রথম পাঁচে যায়গা করে নেন অরুণাভ চট্টোপাধ্যায়,কৌস্তভ রায়,রিক বিশ্বাস,কৌস্তভ চট্টোপাধ্যায়,মাধুর্য মুখোপাধ্যায়,নীলাজ্ঞন সাহা।রূপঙ্কর এর কথায়,” অনেকদিন পর একটা অন্য রকমের গান গাইলাম।গানটা শুনতে,শুনতে মনে,মনে ঘুরতে বেড়িয়ে পড়া যায়।খুব সুন্দর গান হয়েছে।সুদীপ্তর প্রথম লেখা গান।ওঁর সঙ্গে অনেক কাজই আগে করেছি।তবে গানটা খুব সুন্দর লিখেছেন।অরুণাভর সুরও খুব ভালো,ওঁরই মিউজিক অ্যারেজ্ঞমেন্ট।আশা করি এই ট্রাভেল সঙটা সবার ভালো লাগবে।” সুদীপ্ত চন্দ বললেন,”এটা আমাদের প্রথম পুজোর গান।পাহাড়ে বেড়াতে যারা ভালোবাসেন,বিশেষ করে এই গানে তারা পাহাড়ে ঘুরতে যাওয়ার আমেজ পাবেন।” মিউজিক ভিডিও নির্দেশনায় সৌরভ ব্যানার্জি। গানটি আগামী ১৩ অক্টোবর আমারা মিউজিক থেকে ডিজিটালি মুক্তি পাবে।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *