মেঘবেলা ব্রডব্যান্ড পশ্চিমবঙ্গে নিয়ে এলো কোয়াড-প্লে পরিষেবা

• পূর্ব ভারতের প্রথম আইএসপি যারা এফটিটিএইচ (ফাইবার-টু-দ্য হোম) প্রযুক্তির মাধ্যমে ভয়েস, ভিডিও, ডেটা এবং ওয়্যারলেস পরিষেবার সূচনা করলো
• একসাথে পান নিরবচ্ছিন্ন হাই-স্পিড ব্রডব্যান্ড সংযোগ, আনলিমিটেড ভয়েস কলিং এর সুবিধা, একই সাথে প্রিমিয়াম ওটিটি সাবস্ক্রিপশন এবং ১৫০+ লাইভ টিভি চ্যানেল

নিজেস্ব প্রতিনিধি: পশ্চিমবঙ্গের শীর্ষস্থানীয় আইএসপি (ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার) এবং এমএসও (মাল্টি সার্ভিস অপারেটর) মেঘবেলা কেবল এবং ব্রডব্যান্ড সার্ভিসেস আজ বিনোদন জগতে এক আমূল পরিবর্তন ঘটাবে এমন একগুচ্ছ পরিষেবার সূচনা করলো পশ্চিমবঙ্গবাসীদের জন্য।

মেঘবেলা নিয়ে এলো এক ভয়েস এনাবল্ড অ্যান্ড্রয়েড বক্স যা গ্রাহকদের সাধারণ টিভি কে স্মার্ট টিভি তে রূপান্তরিত করবে। গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট দ্বারা চালিত অ্যান্ড্রয়েড বক্সটির মাধ্যমে অ্যাক্সেস পাওয়া যাবে প্রিমিয়াম ওটিটি প্ল্যাটফর্ম গুলির এবং ১৫০ টিরও বেশি লাইভ টিভি চ্যানেল এর। গ্রাহকরা ২৫০ এমবিপিএস স্পিডের সুপারফাস্ট ব্রডব্যান্ডের সাথে অ্যামাজন প্রাইম, জি ফাইভ , হাঙ্গামা, হাবহপ্পার, শীমারু মি, গানা এবং হইচই, আড্ডাটাইমস এবং বঙ্গ টিভির মতো বাংলা ওটিটি প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন মুক্ত বিনোদন এবং সংগীতের আনন্দ ও উপভোগ করতে পারবেন। অ্যান্ড্রয়েড বক্সটি এইচডিএমআই পোর্ট বা এভি ইনপুট এর মাধ্যমে যে কোনও টিভিতে সংযুক্ত করা যাবে। সংযুক্ত করার পর টিভি স্ক্রিনটি অ্যান্ড্রয়েড নাইন ইন্টারফেস প্রদর্শন করবে, যার মাধ্যমে গ্রাহক জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম এবং লাইভ টিভি চ্যানেলগুলি আক্সেস করতে পারবেন।

কলকাতা এবং পশ্চিমবঙ্গের গ্রাহকদের জন্য তিন রকমের প্ল্যান রয়েছে – ত্রৈমাসিক (৫২৫০ টাকা), অর্ধ-বার্ষিক (৯০০০ টাকা) এবং বার্ষিক (১৫,০০০ টাকা)। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের সুবিধা সহ চারটি মাসিক প্ল্যানও রয়েছে – ১০০০ টাকা , ১২৪৯ টাকা, ১৪৯৯ টাকা এবং ১৫৪৯ টাকা। মেঘবেলা এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের সাথে একটি জিরো কস্ট ইএমআই সুবিধা চালু করেছে যাতে গ্রাহকরা ৩/৬/৯/১২ মাসের জন্য সুদমুক্ত ইএমআইতে পেমেন্ট করতে পারবেন। শুধু তাই নয়, মেঘবেলা তার গ্রাহকদের কোভিড ১৯ থেকে রক্ষা করার জন্য ওরিয়েন্টাল ইনসিওরেন্সের সাথে ১ লক্ষ টাকার করোনা কবচ স্বাস্থ্য বীমা দিচ্ছে ।

যে সমস্ত গ্রাহকরা তাদের স্মার্টফোনে এসব দেখতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন এবং অ্যান্ড্রয়েড বক্স ভাড়া করতে চান না, তাঁরা প্লে স্টোর বা আইওএস স্টোর থেকে মেঘবেলা অ্যাপটি ডাউনলোড করেই উপরের সমস্ত সুবিধা এবং পরিষেবাগুলি পেতে পারেন। মেঘবেলা বিনোদনের সম্ভার প্রসারিত করতে ডিজনি+ হটস্টার, সোনি লিভ, ডিসকভারি+ এর মতো অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্মের সাথেও আলোচনায় রয়েছে।

মেঘবেলা ১০,০০০ কিলোমিটার ওভার-হেড ফাইবার নেটওয়ার্ক এবং ২০০০ কিলোমিটার ভূগর্ভস্থ অপটিক-ফাইবার-কেবল পরিষেবার পাশাপাশি ফিক্সড লাইন ভয়েস সার্ভিস চালু করেছে যাতে গ্রাহকরা বিনামূল্যে যে কোনও নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড লোকাল এবং এসটিডি ভয়েস কল করতে পারবেন। এই পরিষেবা প্রাথমিকভাবে কলকাতায় চালু হচ্ছে এবং পর্যায়ক্রমে অন্যান্য জায়গায় এটি চালু করা হবে।

উদ্বোধনের সময়ে মেঘবেলা ব্রডব্যান্ড এর কো-ফাউন্ডার এবং ডিরেক্টর শ্রী তপব্রত মুখার্জী বলেন, “কোভিড-১৯ ডিজিটাল পরিষেবাকে ত্বরান্বিত করেছে। বাড়ি থেকে কাজ, বাড়ি থেকে পড়াশোনা এবং বাড়িতেই বিনোদন এই সময়ের কয়েকটি সংযোগ। এই দ্রুত পরিবর্তনশীল সময়ে সুপারফাস্ট ইন্টারনেট অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হয়ে উঠেছে। পশ্চিমবঙ্গে আমাদের এই একগুচ্ছ কোয়াড-প্লে পরিষেবা চালু করার সাথে মেঘবেলা এই ব্যবধানটি পূরণ করতে চাইছে। একক সংযোগের মাধ্যমে আমাদের বিচক্ষণ গ্রাহকরা আনলিমিটেড সুপারফাস্ট ইন্টারনেট, আনলিমিটেড ভয়েস কলিং, প্রিমিয়াম ওটিটি প্ল্যাটফর্ম এবং লাইভ টিভি চ্যানেলগুলি ব্যাবহার করতে পারবেন। আমরা আশাবাদী যে ২০২১ বছরের শেষে আমাদের গ্রাহক সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে উঠবে “

মেঘবেলা ব্রডব্যান্ড-এর বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে ১.৫ লক্ষেরও বেশি ব্রডব্যান্ড গ্রাহক রয়েছে এবং তারা ২০২১ সালের মধ্যে এই সংখ্যা দ্বিগুন করে তুলতে চায় ২ লক্ষের বেশি নতুন গ্রাহক সংযুক্তি করণের মাধ্যমে। মেঘবেলা অ্যান্ড্রয়েড বক্সটি ওড়িশা, বিহার এবং ঝাড়খন্ডে চালু হতে চলেছে এবং সংস্থাটি জাতীয়স্তরে আইপিটিভি প্ল্যাটফর্মও চালু করার পরিকল্পনা করছে।

তাদের ব্যবসায়িক সম্প্রসারণ সম্পর্কে মেঘবেলা ব্রডব্যান্ড এর কো-ফাউন্ডার এবং ডিরেক্টর শ্রী ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য বলেন, “আমরা ২০০৭ সালে পথচলা শুরু করি এবং আজ সংস্থা হিসাবে মেঘবেলা অনেকটাই এগিয়ে এসেছে । আমরা শীঘ্রই জাতীয় স্তরে পৌঁছনোর ব্যাপারে আশাবাদী। আমরা ওড়িশা, বিহার এবং ঝাড়খন্ড জুড়ে পর্যায়ক্রমে পূর্ব ভারতে অ্যান্ড্রয়েড বক্স লঞ্চ করব। শীঘ্রই আমরা আইপিটিভি প্ল্যাটফর্ম চালু করব যা আমাদের সর্ব ভারতীয় স্তরে উপস্থিতি দেবে।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *