*Help My Daughter Raise Funds To Recover From Neuro Cerebral Palsy*https://www.impactguru.com/fundraiser/help-alisha-islam
Home Blog Page 5

Blackberrys launches Pujo pop-ups, showcasing Techpro range

0

Kolkata 25 September 2022: This Pujo, top clothing brand Blackberrys aims to magnify your festive celebrations with its latest avatar. Visiting pandals, all decked up in new clothes, and eating out will be even more exciting after the two years of restraint. And to add a tinge of bling as well as to your celebrations, Blackberrys has launched its TECHPRO collection. Created using light-weight, stretchable, wrinkle-resistant and smart dry fabric, every piece in the collection allows you to move throughout the day with absolute ease, making Pandal Hopping fun in the sultry weather. The collection offers clothes ranging from trousers to formal suits, casual khakis to polo t-shirts, and more in vibrant and subtle hues, and matt-finished modern trims for all-day freshness and breathability.


And to add a touch of ease to your shopping experience during the festive season, Blackberrys has revamped its stores with the Pujo Shopping spirit. All Blackberrys flagship stores in Kolkata have been redesigned in vibrant Orange, the colour that signifies connection, a sense of community, and belonging, and subtle and beige, to welcome the Pujo shoppers and celebrate the festive spirit.


Shoppers can enjoy the festive shopping experience with BlackBerrys Pujo Pop-Ups meticulously displaying the new collection to help you look sharp and make your move and match the spirit of this vibrant festival.


The Techpro range along with a wide range of suits, jackets, waist coats, top and bottom wear, accessories and shoes are available at the Pujo pop-ups at Gariahat, City Centre Rajarhat Kolkata, South city in Kolkata.


About the Brand: Started in 1991 with a passion to transform and deliver with the evolving fashion needs and desires of the modern man, Blackberrys now has 350+ stores across 28 states, along with an online presence. Blackberrys is motivated by the desire to make every day special for the modern gentleman and works dedicatedly to deliver the handsome ‘You’. Blackberrys helps you surpass all your challenges, and to never stop evolving and pushing further with clothes that keep.

বৃক্ষ রোপন ও বস্ত্র বিতরণ

0

নিজস্ব প্রতিনিধি:পন্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায় জন্ম জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে গলিগ্রাম,বর্ধমানে একটি বৃক্ষ রোপন ও বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়ে গেল।সারাদিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে গ্রামের প্রায় ৩৫০ থেকে ৪০০ মানুষকে বস্ত্র বিতরণ করা হয়।পূজো প্রাক্কালে এই উপহার পেয়ে গ্রামের প্রতিটি ব্যক্তি খুব খুশি।তারা সবাই মিলে এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন এবং খুব আনন্দের সাথে হাতে তুলে নেন এই উপহার সামগ্রী।এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভাবনা শর্মা,(সংগঠন মন্ত্রী),শ্রী তুলসীদাস মিশ্র,(রাষ্ট্রীয় মন্ত্রী), কিরণ শর্মা,(বেঙ্গল মহিলা প্রদেশ অধ্যক্ষ) এছাড়াও অনেক বিশিষ্ঠ ব্যাক্তিরা।সমগ্র অনুষ্ঠানটির পরিচালনায় ছিল পন্ডিত দিনদয়াল উপাধ্যায় বিচার সংঘ(ভারত)

শতাধিক ব্যক্তির হাতে পুজোর বস্ত্র ও খাদ্য তুলে দিল সায়ন্তনী অধিকারী ফাউণ্ডেশন

0

নিজস্ব প্রতিনিধি: মহালয়ার পুণ্য তিথিতে প্রয়াত সায়ন্তনী অধিকারী-র স্মরণে শতাধিক অন্ধ ব্যক্তির হাতে পুজোর নতুন পোশাক, উপাদেয় খাদ্য ও জুতো তুলে দিল ‘সায়ন্তনী অধিকারী ফাউণ্ডেশন’।

‘রামকৃষ্ণ মন্দির বীরশিবপুর’-এর আয়োজনে কোলকাতার হেদুয়া পার্কে ‘কোলকাতা পৌরনিগম’-এর ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের পৌরমাতা মীনাক্ষী গুপ্তা এবং ‘হোলি চাইল্ড ইন্সটিটিউট’-এর অধ্যক্ষা সিস্টার রোশনী সহ একাধিক বিশিষ্ট অতিথিদের উপস্থিতিতে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

বলে রাখা ভালো ‘করোনা অতিমারী’-র সময় ২৯ জুলাই ২০২০ সায়ন্তনী অধিকারী মাত্র ২৩ বছর বয়সে না ফেরার দেশে চলে যায়।
অনুষ্ঠান চলাকালীন সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে গিয়ে, সায়ন্তনী-র বাবা তথা ‘সায়ন্তনী অধিকারী ফাউণ্ডেশন’-এর সভাপতি বিদ্যুৎবরণ অধিকারী জানান, “মেয়ের স্মৃতিকে অমর করে রাখার জন্যে আমাদের এই প্রয়াস।”
অপরদিকে সায়ন্তনী-র মা তথা ফাউণ্ডেশন-এর সহাধ্যক্ষা সুদক্ষিণা অধিকারী অশ্রুসিক্ত নয়নে জানিয়েছেন, “রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত ১০০ জন অন্ধ ব্যক্তি সহ আরো ২০ জনের হাতে আজ পুজোর নতুন পোশাক, খাদ্য ও জুতো তুলে দেওয়া হয়েছে।”

দুঃস্থ অসহায় মানুষের পাশে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার

0

নিজস্ব প্রতিনিধি:পিতৃপক্ষের অবসানে ও দেবীপক্ষের সূচনায় , মহালয়ার সকালে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার পৌঁছে গিয়েছিলেন উত্তর কলকাতার নিমতলায় , ভূতনাথ মন্দির প্রাঙ্গণে। সেখানে তিনি উপস্থিত দুঃস্থ মানুষদের হাতে তুলে দিলেন খাদ্য সামগ্ৰী। শারদীয়ার প্রাক্কালে মা দুর্গার আগমনের সুর যেন বেজে উঠলো এই মানুষগুলোর এক চিলতে হাসিতে। অসহায় মানুষগুলোর মুখের হাসিতেই মধুমিতা পান পুজোর আনন্দ।

তাঁর মতোই , এই আনন্দে সামিল হতে দঃস্থ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকলকে আহ্বান জানান মধুমিতা।

পূজোর মজা এবার ইবিজাতেই

0

নিজস্ব প্রতিবেদক:ইবিজা দ্য ফার্ন রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা, কলকাতার বুকে একটি অন্য অভিজ্ঞতা দিতে প্রস্তুত। আসন্ন দুর্গাপূজার জন্য নিয়ে এসেছে বিশেষ অফার।
সারা বছর কাজের ব্যস্ততার পর পূজোর সেই চার দিন আমরা বাঙালিরা আনন্দে মেতে উঠি। বাড়ি থেকে দূরে একটু সবুজ নিরিবিলিতে ইবিজা দ্য ফার্ন রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা দুর্গা পূজার বিশেষ অফার সহ অতিথিদের আমন্ত্রণ করতে প্রস্তুত হয়েছে। ১লা থেকে ৫ই অক্টোবরের জন্য একটি বিশেষ দুর্গাপূজা অফার ঘোষণা করেছে, যার মধ্যে থাকছে- থাকা, মধ্যাহ্নভোজ ও রাতের খাবার সহ সকালের ব্রেকফাস্ট সাথে সাঁতার কাটা, বোটিং ও অসংখ্য ইনডোর এবং আউটডোর গেমস। প্রধান আকর্ষণ হিসাবে থাকছে, ঢাকি, বাউল পারফরম্যান্স, আনপ্লাগড সিঙ্গার, ডিস্কো, কারাওকে সেশন, বৃক্ষরোপণ কর্মশালা ও মুভি শো। যা প্রাপ্তবয়স্কদের ও বাচ্চাদের উৎসবের পাশে মজার মেজাজ তৈরি করবে। দুর্গা পূজার সময় এক রাত থাকার জন্য ব্রেকফাস্ট থেকে রাতের খাবার এর খরচ পরবে ৮,৯৯৯/- থেকে ১১,৯৯৯/- (GST সহ)।


ইবিজা এর জেনারেল ম্যানেজার শুভদীপ বসুর কথায়-, “কলকাতার মধ্যে সবুজে ভরপুর এই রিসোর্ট। আমরা অতিথিদের মধ্যে আনন্দ লক্ষ্য করেছি। কারণ তারা পূজার সময় অন্তত একদিনের জন্য নিরিবিলি শান্ত পরিবেশ পছন্দ করে। আতিথেয়তার ক্ষেত্রে মহামারী চলাকালীন ইবিজা ইতিমধ্যেই পর্যটকদের পছন্দের জায়গা হয়ে উঠেছে।”

Mayor Inaugurates Exide Foot Over-bridge

0

 Mayor Firhad Hakim inaugurates foot over-bridge at Exide Crossing
 Exide spent approx. Rs 5 crore to build this foot over-bridge as part of its CSR to ease the traffic congestion at this busy intersection and make it safer for pedestrians. Exide will also maintain it for next 30 years.
 Exide’s Durga Puja gift to the City of Joy.

Kolkata, 24th September, 2022: City Mayor, Janab Firhad Hakim on Saturday inaugurated a foot overbridge for the citizens of Kolkata at the busy Chowringhee-AJC Bose Road intersection, popularly known as Exide crossing. The over-bridge near the Exide head office is expected to considerably ease traffic congestion near the crossing and make it safe for thousands of pedestrians who use the busy intersection every day.


The inauguration ceremony was also attended by the KMC chairperson, Smt. Mala Roy and other government dignitaries, in the presence of Exide MD & CEO Mr. Subir Chakraborty.
Speaking on the occasion, Exide MD & CEO Mr. Subir Chakraborty said, “Exide has been proud to be not just an important member of the business community of Kolkata for the last 75 years, it has also been an integral part of the socio-cultural milieu of the city. As such, we consider it our duty and responsibility to do our bit for the citizens and particularly for this crossing which is part of our identity as well.” He further added, “We hope pedestrians, particularly the elderly and the school-going children who come here every day will now use this safe method of crossing the busy road intersection and the administration will extend their cooperation to facilitate the same. In our Diamond Jubilee year, this is our Durga Puja gift to the City of Joy.”


The 42-meter-long FOB is a social initiative of Exide in which it has sponsored close to Rs 5 crores. The bridge, spanning the two sides of Asutosh Mukherjee Road, was constructed by the city-based engineering company Titagarh Wagons Ltd. For the convenience of people, the over-bridge has an escalator as well as a normal staircase on each side of the bridge. The structure will be maintained for the next 30 years by Exide Industries Limited.

ITC Ltd.’s Sunrise Spices collaborates with women bikers to propagate the concept of Durgatinashini across Kolkata

0

Kolkata, September 25, 2022: ITC Ltd.’s Sunrise Spices, the market leader in the branded spices category in West Bengal, organized a city-wide all-women’s bike rally to commence the celebration of Durga Puja festivities in Kolkata. 

The initiative aims to promote the concept of Durgatinashini which aspires to sensitize people about the importance of self-defense among women. Flagged off at the 66 Pally Durga Puja Pandal, 5 women bikers will be riding across the length and breadth of Kolkata for 5 consecutive days. The bikers have covered 60kms on the first day of the rally and are aiming to cover around 300kms in prominent locations for the next four days.

The concept of Durgatinashini was brought alive by Sunrise Spices with the launch of a music video sung by famed Bengali singer Lopamudra Mitra, featuring renowned actress Mumtaz Sorcar.

The video showcases a unique fusion of self-defense that was choreographed by professionals and guided by self-defense expert Gaurav Goswami.

Link of the music video: https://youtu.be/Pu5ttclIkw8

ঝিনুক খুঁজে পেলাম যখন, হারিয়ে গেল মুক্ত খানি!

0

✍️সঞ্জয় চট্টোপাধ্যায় (সঙ্গীতশিল্পী)

প্রত্যেকটি বাঙালির জীবনে প্রথম প্রেমের অনুভূতির ক্ষেত্রে বেশিরভাগ মানুষের কাছেই গানের অবদান অনস্বীকার্য বলে আমি মনে করি।
কিন্তু আজ বলব অন্য এক নস্টালজিয়ার কথা। এক অন্যরকম অনুভুতির কথা।

ছোটবেলায় যে দিন গুলোয় দুপুর অথবা রাতে ঘুম না আসায় দুষ্টুমির পরিমাণ সীমা ছাড়াতো,
তখন স্নেহভরা দুটি হাতে কাছে টেনে নিয়ে ঘুম পাড়াতে পাড়াতে মা যে গানের ডালি স্নেহের কন্ঠে গাইতো, তাঁরই মধ্যে একটি বিশেষ গান, ছোটবেলার সেই দিন গুলোর এক অদ্ভুত রঙীন ক্যানভাস্ তৈরি করে রেখেছে মনের অন্তরালে আজও। সেই গানের কন্ঠশিল্পীর কথাই বলব বলে কলম ধরেছি আজ হাতে।
“ও তোতা পাখি রে,
শিকল খুলে উড়িয়ে দেব,
মা কে যদি এনে দাও,
আমার মা কে যদি এনে দাও।”
এই কালজয়ী গানের লেখক ও সুরকার মাননীয় প্রবীর মজুমদার হলেও, যাঁর তুলনাহীন কন্ঠে এই গানটি প্রাণ পেয়েছে, তিনিই সেই কিংবদন্তি শিল্পী শ্রদ্ধেয়া নির্মলা মিশ্র।

যদিও এ কথা আপামর বাঙালির অজানা নয় যে এই কিংবদন্তি কন্ঠশিল্পী আজ আমাদের মধ্যে নেই, এই দুঃসংবাদটা যদিও বেশকিছুদিন আগের।
যেদিন এই শোকসংবাদ কানে এসেছিল, সেদিন, বেশ কিছুক্ষণ আমি স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলাম রাস্তাতে কাজের ব্যস্ততার মধ্যেও।

সেই সময়ে সত্যিই আমি কিছু লিখে উঠতে পারি নি। আজ মহালয়ার শুভক্ষণে শারদীয়ায় পূর্ব প্রকাশিত অন্তর মুগ্ধ করা বাংলা গানের স্মৃতিচারণের অবকাশে ভেতরে ভেতরে কি যেন এক বলতে না পারার অনুভূতি থেকে এই কথা গুলো লিখছি।

তাঁর কন্ঠের আরও একটি গান “আমি তো তোমার চিরদিনের, হাসি কান্নার সাথী” এর ঘটনা এক মৌলিক বাস্তব ঘটনার এক নাটকীয় রূপ। সে কথা না হয় অন্য কোনদিন সবিস্তারে বলব।

এমন করেই তাঁর প্রত্যেকটি গান যেন বাংলা তথা ভারতবর্ষের ইতিহাসে এক একটা মাইলষ্টোনের মতো হয়ে আছে সঙ্গীতপ্রেমীদের অন্তরে। বাংলা গানের পাশাপাশি তাঁর গাওয়া ওড়িয়া গান আজও ওড়িয়া শ্রোতাদের কাছে জনপ্রিয়তার সর্বোচ্চ স্থান দখল করে রয়েছে।

লতা মঙ্গেশকর, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, বাপ্পি লাহিড়ী, কে কে এবং ভুপিন্দর সিং এর মতো, আমরা সঙ্গীতপ্রেমীরা আরও এক অপূরণীয় এবং কিংবদন্তি কন্ঠশিল্পীকে হারালাম, যাঁর শূন্যস্থান কোনদিনই পূর্ণ হওয়ার নয়।

আমি সঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়, আমার কলমে এই প্রণম্য শিল্পীর প্রতি সামান্য শ্রদ্ধার্ঘ্য জানালাম আমার ভাষায়, আমার কলমে:-

ঝিনুক খুঁজে পেলাম যখন,
হারিয়ে গেল মুক্তখানি,
চিরদিনের কথা দিয়েও,
আঁকলে দুখের চিত্রখানি।

আয়নারও তো হিংসে ছিল,
তোমার রূপে মুগ্ধ হয়ে,
ওমন মিষ্টি কন্ঠ যে আর,
পাই না খুঁজে হন্যে হয়ে।

মায়ের খোঁজে কান্না তোমার,
আজও কাঁদায় আমার এ মন,
আজও আবার ভিজলো এ চোখ,
শিল্পী তোমার বিদায় যখন।

যেখানেই থাকো ভালো থেকো হে মহান শিল্পী।

Dr. Abhishek M. Singhvi Establishes Rs. 2 Crore Endowment at O.P. Jindal Global University

0

✍️By Special Correspondent

Eminent jurist and Senior Advocate of the Supreme Court of India, Dr. Abhishek M. Singhvi has established the Singhvi Endowment as a generous act of philanthropy at Jindal Global Law School (JGLS) of O.P. Jindal Global University (JGU).

Dr. Singhvi has signed an Endowment Agreement with O.P. Jindal Global University (JGU) for the establishment of the “Singhvi Endowment” at Jindal Global Law School to the tune of Rs. 2 crores. The students of JGLS would be the primary beneficiaries of this extraordinarily generous philanthropic initiative. This initiative, inter alia, pays homage to the memory of Dr. L.M. Singhvi, the eminent diplomat, parliamentarian, jurist and author.  

Commenting on this special occasion, Professor (Dr.) C. Raj Kumar, Founding Vice Chancellor, O.P. Jindal Global University (JGU) & Founding Dean, Jindal Global Law School (JGLS) said, “This is a historic occasion for JGU and JGLS to have become the recipient of the distinguished endowment by Dr. Abhishek M. Singhvi. While it is stark evidence of Dr. Singhvi’s outstanding commitment and dedication to higher education and legal education, his choice of JGU as the institution for realizing his commitment is a huge recognition for us. The Singhvi Endowment will be the first and pioneering endowment established in JGU outside the philanthropic initiative of our founding Chancellor and benefactor, Mr. Naveen Jindal who endowed the entire university. I am truly overwhelmed by this generous gesture of Dr. Singhvi and the Singhvi family. On behalf of the students, faculty, and staff of JGU, I thank Dr. Singhvi and his family for their generosity and commitment to philanthropy. This Endowment has been established at JGU for perpetuity and several initiatives will be part of the endowment benefitting the faculty and students of JGU and JGLS.” 

Announcing the Singhvi Endowment, Dr. Abhishek M. Singhvi, Senior Advocate, Supreme Court of India & Member of Parliament, observed, “I am most excited to announce the establishment of the Singhvi Endowment at Jindal Global Law School of O.P. Jindal Global University. JGU and JGLS have been at the forefront of promoting excellence in legal and higher education in India. The fact that JGU and JGLS have been recognised as India’s first ranked private university and India’s first ranked law school respectively and indeed, consistently for three years in a row by the QS World University Rankings demonstrates the stellar national and international reputation of this national ‘institution of eminence’. Our goal in establishing the Singhvi Endowment is to give it back to the society from where I have immensely benefitted. The vision of the Singhvi Endowment is to provide access to world-class education for young people who cannot afford and to empower India’s leading universities to promote excellence.” 

Reflecting on the news relating to the Singhvi Endowment, Professor Peter H. Schuck, Simeon E. Baldwin Professor of Law Emeritus, Yale Law School, USA & Chair, International Board of Advisors, JGU observed, “The establishment of a new and extraordinarily generous endowment at JGU by the noted philanthropist and jurist, Dr. Abhishek Singhvi represents a firm commitment to this remarkable institution’s continued flourishing and expansion into new areas of study, research, innovation, and community service. It is a magnificent tribute to the vision of JGU’s founding leadership, which will enable it to strengthen its leading roles in all of these areas, while developing new ones. This endowment will further entrench JGU’s leading role not only in India but throughout the developing world.”

Professor (Dr.) Jayanth K. Krishnan, Milt and Judi Stewart Professor of Law, Indiana University, USA & Co-Chair, International Board of Advisors, JGU observed, “This incredibly generous gift by Dr. Singhvi is a significant moment in the history of O.P. Jindal Global University. Dr. Singhvi’s extraordinary contribution here to promote the rule of law by helping to strengthen legal education is pivotal for all of us who care about providing access to the best research and teaching opportunities to the next generation of law students and future lawyers in India. As a long-time, loyal supporter of JGU, I am personally inspired and extremely moved by what Dr. Singhvi has done here for this wonderful institution.”

Professor (Dr.) Sreejith S.G., Executive Dean, Jindal Global Law School observed that, “A university becoming the site of philanthropic initiatives is a heartening sight, as it is tantamount to making a contribution to the making of the future. While philanthropy in the form of endowments supports the university, it also vests upon the university the responsibility to fulfill expectations of the highest order. I am certain, and determined, that Jindal Global Law School will uphold the values of this endowment and honour its objectives. We deeply appreciate the generous act of philanthropy of Dr. Singhvi in establishing the Singhvi Endowment, which I am sure will inspire other leaders in the legal profession.” 

Dalmia Bharat Salutes 123 Veteran Contractors across Eastern Region during ‘Aap Hain Sachche Viswakarma’ felicitation

0

  • During company’s annual Vishwakarma Puja celebration in West Bengal 26 Heroes of Construction were honoured, ensuring salience within region’s contractor fraternity

✍🏻By Special Correspondent

Dalmia Bharat Limited (DBL), one of the nations leading cement manufacturers, celebrated the valuable contributions of 123 veteran contractors across the East region at its ‘Aap Hai Sachche Viswakarma’ felicitation initiative. Saluting elderly veteran contractors whose expertise and craftsmanship have made innumerable dream homes of Individual House Builders a reality, the event was held during the company’s annual Viswakarma Pooja celebration in Midnapore, West Bengal.

Dalmia Bharat Limited started the ‘Aap Hai Sachche Viswakarma’ initiative in 2020 to build salience within the contractor fraternity across the region. In its inaugural year, 14 Viswakarmas were honoured, followed by 74 in 2021. This year, the cement major celebrated a record 123 veteran contractors across the region including (45 in Bihar, 35 in Orissa, 26 in West Bengal, 11 in Jharkhand and six in Uttar Pradesh.)

Commenting on the company’s ‘Aap Hai Sachche Viswakarma’ initiative, a company spokesperson said, “Each year our company celebrates Viswakarma Puja day  with our fraternity of Veteran Contractors by worshipping Lord Viswakarma who is regarded as the God of Workmanship and Skill. As a mark of honour and gratitude towards our elderly contractors in the East region, we salute them,on this day, to commemorate their irreplacable craftsmanship that has helped build our nation. We hope that our ongoing efforts will help forge a strong  emotional connect as well as infuse a sense of respect that is an integral aspect of our Dalmia Bharat Limited value system.”

During the celebration, the life and work of selected senior contractors, encapsulated in a specially-designed album, was shared with the entire contractor fraternity. The Viswakarmas were also presented with a memento honour, a shawl, a Wall clock in the presence of the senior contractors’ families, Dalmia Cement senior functionaries and dealers, the contractor fraternity,  theDalmia Bharat team.

The felicitation was organised in the presence of over 1300 masons and contractors, Dalmia Bharat’s channel partners and key influencers. 

About Dalmia Bharat: Founded in 1939, Dalmia Bharat Limited (DBL) (BSE/NSE Symbol: DALBHARAT) is one of India’s pioneering cement companies headquartered in New Delhi. With a growing capacity, currently pegged at 37.0MnT, Dalmia Bharat Limited is the fourth-largest cement manufacturing company in India by installed capacity. Spread across 10 states and 14 manufacturing units, the Company is a category leader in super-speciality cement used for oil well, railway sleepers and airstrips and is the country’s largest producer of Portland Slag Cement (PSC).  Dalmia Cement (Bharat) Limited, a subsidiary of Dalmia Bharat Limited, prides itself at having one of the lowest carbon footprint in the cement world globally. It is the first cement company to commit to RE100, EP100 & EV100 (first triple joiner) – showing real business leadership in the clean energy transition by taking a joined-up approach. 

Visit us at https://www.dalmiacement.com/