স্বপ্ন ছিল ক্রিকেটার হওয়ার হয়ে গেলেন অভিনেতা

    0
    184

    By Ramiz Ali Ahmed

    তিনি ভবানীপুর ফার্স্ট ডিভিশনে খেলতেন।স্বপ্ন ছিল ক্রিকেটার হওয়ার।একদিন খেলতে গিয়ে হাঁটুর লিগামেন্ট ছিঁড়ে যায়।খেলাটা ছেড়ে দিতে হয়।পড়াশুনাতেও বেশ ভালো ছিলেন।সেন্ট স্টিফেন্স থেকে উচ্চমাধ্যমিকের পর জয়েন্টে সুযোগ পেয়ে টেকনো ইন্ডিয়া থেকে কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েছেন।ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার কথাই ছিল।কিন্তু যেটা তিনি স্বপ্নেও ভাবেন নি,হয়ে গেলেন সেটাই।হয়ে গেলেন অভিনেতা।যার কথা বলছি তিনি হলেন এখন মেগার অতি জনপ্রিয় মুখ রাহুল মজুমদার।যাকে আমরা এখন ‘ভাগ্যলক্ষী‘ মেগার বোধায়নের চরিত্রে দেখছি।

    সাক্ষাৎকার পর্বের শুরুতেই তিনি জানালেন,”বোধায়নের সঙ্গে আমার অনেক মিল আছে।বোধায়ন যেমন সবাইকে রেসপেক্ট করে আমিও সবাইকে রেসপেক্ট করার চেষ্টা করি।আরো অনেক মিল আছে।কিন্তু বোধায়ন খুব কম কথা বলে আমি খুব টকেটিভ।চরিত্রটা করতে খুব এনজয় করছি।এর আগে আমি ‘দেবী চৌধুরানী‘তে ব্রজেশ্বর চরিত্রটা করেছিলাম।চরিত্রটা দুশো বছর আগের একটা চরিত্র ছিল।সেই চরিত্রটা আমার অনেক নেম ও ফেম দিয়েছে।কিন্তু ব্রজেশ্বর অনেক কিছু করতে পারতো না,এই কথা ঐ কথা ব্রজেশ্বর বলতে পারে না।চরিত্রটার মধ্যে অনেক রেস্ট্রিকশান ছিল।বোধায়ন চরিত্রটা যেহেতু এখনকার মতো, ভালো লাগছে।”

    রাহুলের বিপরীতে শার্লি আছে ভাগ্যশ্রীর চরিত্রে।কেমন কেমিস্ট্রি জানতে চাইলে রাহুল জানালেন,”খুব ভালো।শুধু শার্লি নয়,সবার সাথে খুব ভালো সম্পর্ক।আমি যেখানে কাজ করি আমার জন্য কোনো আলাদা রুম নিই না।সবাই একসাথে আনন্দ করি।সকলে একদম পরিবারের মতো।”

    রাহুলের শুরুটা অবশ্য সিনেমা দিয়ে হয়েছিল।’রংরুট‘ ছবি দিয়ে পর্দায় পদার্পন ঘটেছিল রাহুলের।রাহুলের বিপরীতে ছিলেন টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রীতি বিশ্বাস।দেখান থেকেই রাহুল-প্রীতির প্রেম পর্ব শুরু।রাহুল-প্রীতির বিয়ে এই বছরের প্রথম দিকেই হয়েছে।দুজনেই এখন জমিয়ে সংসার করছেন।প্রীতি এখন ব্যস্ত ‘সৌদামিনির সংসার‘-এ আন্নাকালি চরিত্রটা নিয়ে।

    রাহুলের অভিনয়ে সুযোগটা খুব সহজে ঘটেনি।অনেক জায়গায় অনেক কথা শুনতে হয়েছিল।’তুমি কি কোনো নায়কের ছেলে যে তোমাকে নায়কের চরিত্র দিতে হবে?’-এরকম কথাও শুনতে হয়েছিল।

    ভালো কোনো ছবির চরিত্রে সুযোগ পেলে সিনেমায় আবার অভিনয় করতে চান।

    রাহুলের বাবা মা-ও রাহুলকে সব ব্যাপারে সবসময় সাপোর্ট করেন।

    ব্যক্তি মানুষ হিসেবে রাহুল খুব ভালো মনের মানুষ।রাহুলের আক্ষেপ বেশি ভালো মানুষ হলে লোকে দুর্বল মনের মানুষ ভেবে নেয়।যদিও রাহুল এরমকমই থাকতে চান।

    ছবি:বিশ্বজিত সাহা

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here