রুবাইয়ার ‘কুয়াশার ফুল’

0
39

বইয়ের নাম – কুয়াশার ফুল

কবি – রুবাইয়া জুঁই

রুবাইয়া জুঁই এর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ” কুয়াশার ফুল”।কিন্তু বইটি পড়লে একবারও মনে হয় না যে এটা ওর প্রথম কবিতার বই।বইটিতে মোট ৫৫ টি কবিতা আছে। আমি একটি কবিতা পড়তে পড়তে পরের কবিতাটি পড়ার জন্য অমোঘ আকর্ষণ বোধ করছি। সত্যি বলতে এত সুন্দর ভাষার কারুকার্য যে না পড়লে বিশ্বাসই হবে না।
১) কপালে সীমান্ত রেখা সাজিয়ে দাঁড়িয়েছ তুমি / যে রেখা শুধু জীবন মৃত্যুর ব্যবধান লেখে (সীমান্ত রেখা )
২) বালিশের মতো, পৃথিবীর মতো, আঁকড়ে ছিলাম তোমাকে। বুকের ভেতর বরফযুগ। কাচের ঘরে আদিম সত্ত্বা।( নির্বাসিত )
৩) আজও মশাল জ্বালিয়ে যে মেয়েটি অপেক্ষা করছে গোরস্থানে / তার জন্য ফিরে এসো। ফিরে এলেই তুমি প্রেমিক হবে না ফিরলে ঈশ্বর। (মায়া জন্ম )
৪) চারিদিকে আলো ফুটতেই অপেক্ষারা ছেড়ে যায়। খোলসে খোলসে আবার নিজেকে লুকিয়ে রাখি…(জরতী )
৫) একেকদিন একেক রকম দেখায় তোমায় / কখনও ফাঁকা রাস্তা / কখনও শূন্য বাড়ি / কখনও বা অন্তর্জলি / ( কখনও বা অন্তর্জলি )
৬) পরিবর্তন কখনও আসে না, ওসব শুধু মনের ভুল / রোদ ছড়ালেই মুছে যায় শিশিরের রাস্তা (কুয়াশার ফুল )
৭) একটি রাত কেঁদে কাটালো মেয়েটি তোমার কবিতার বই বুকে আঁকড়ে, তাও জানলে না, শুধু মিশেই গেলে…(মৃত্যুশ্লোক )

এরকম অজস্র অসংখ্য মন কেমন করা কিম্বা মন ছুঁয়ে যাওয়া পংক্তি ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে বইটির আনাচে কানাচে। আমি সেগুলো কুড়োনোর চেষ্টা করে যাচ্ছি নিরন্তর।রুবাইয়ার কবিতা পড়তে পড়তে এক অদ্ভুত ভালোবাসায় মনটা ভরে যায়।মানুষের দুঃখ কষ্ট জীবনযাপনের গল্প পেশাগত কারণেই বহু কাছ থেকে দেখা, অথচ কবিতায় কী শান্তভাবে এ যুগের মানুষের দাবিগুলো নিয়ে উচ্চারিত তার শব্দে নেই কোন উচ্চকিত নির্ঘোষ। কী এক মায়াবি মন নিয়ে কবিতার শব্দগুলো ছুঁয়ে যায় পাঠককে।বইয়ের প্রচ্ছদটিতেও রয়েছে যথেষ্ট মুন্সিয়ানা।প্রচ্ছদ এঁকেছেন অর্পণ। বইটি পালক পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত।

পালক পাবলিশার্স
মূল্য -১২৫/-

আলোচনায় – নির্মাল্য ঘোষ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here