Anando Sangbad Live

চালতাবাগান দুর্গোৎসবের উদ্যোগে স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ‘দশভূজা

আনন্দ সংবাদ লাইভ: মাণিকতলা চালতাবাগান লোহাপট্টি দুর্গাপূজা কমিটির উদ্যোগে অসুরদলনী দুর্গার দশটি হাতে দশটি অস্ত্রের বিশেষত্ব নিয়ে তৈরী হয়েছে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ‘দশভূজা’। ছবিটির মধ্যে আধ্যাত্মিকতা ছাড়াও নিহিত রয়েছে দেবীর দশটি অস্ত্রের মাহাত্ম্য ও তার মধ্যে প্রচ্ছন্ন বার্তা। আই.টি.সি রয়্যাল বেঙ্গলে বাংলা, হিন্দী দুটি ভাষায় প্রদর্শিত হয়েছে ছবিটির প্রিমিয়ার। শিল্প-সংস্কৃতি ও চলচ্চিত্র জগতের গণ্যমান্য ব্যাক্তিরা সম্মিলিত হয়েছেন চালতাবাগানের এই নব উদ্যোগে।
স্বল্পদৈর্ঘ্যের এই ছবিটির মূলভাবনা এবং প্রযোজনা শ্রী সন্দীপ ভূতোড়িয়ার। তিনি ৭৮ বছরব্যাপী উদযাপিত হওয়া মাণিকতলা চালতাবাগান লোহাপট্টি দুর্গাপূজা কমিটির চেয়ারম্যান। সমগ্র চলচ্চিত্রটি নির্মাণে সামিল হয়েছেন বহু বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ। ফিল্মটির পরিচালনা করছেন চিত্রপরিচালক অরিন্দম শীল এবং সঙ্গীত পরিচালক হলেন বিক্রম ঘোষ। গ্র্যামি ও পদ্মভূষণ প্রাপক পন্ডিত বিশ্বমোহন ভাট ফিল্মের একটি অংশে দুর্গা রাগ পরিবেশন করেছেন। সংস্কৃতে শ্লোক শোনা যাবে স্বনামধন্যা নৃত্যশিল্পী ডঃ সোনাল মানসিং এর কন্ঠে। সুগত গুহ’র চিত্রনাট্য, অয়ন শীলের ডিওপি ও অর্ণব বন্দ্যোপাধ্যায়ের নৃত্য পরিচালনার পাশাপাশি কন্ঠসঙ্গীতে রয়েছেন ঊষা উত্থুপ, ইমন চক্রবর্তী ও সোমছন্দা ভট্টাচার্য্য।
ফিল্মটি চিত্রায়িত হয়েছে সল্টলেকের ইস্টার্ন জোনাল কালচারাল সেন্টারে (ইজেডসিসি)। বাংলা ফিল্মটির আবহে ভাষ্যপাঠে শোনা যাবে নুসরত জাহান ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর কন্ঠস্বর। হিন্দীতে ধারাভাষ্য পাঠ করেছেন ডঃ সোনাল মানসিং।
চালতাবাগানের দুর্গাপূজার বিশেষ দুটি আকর্ষণ হল ‘ঢাক উৎসব’ এবং ‘সিঁদুরখেলা’। চালতাবাগানের দুর্গাপূজাই তিলোত্তমা কলকাতায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচলন করেছে ঢাক উৎসব ও সিঁদুরখেলা দুর্গাপূজার এইদুটি বিশেষ অপরিহার্য রীতিকে। এই উৎসবে সামিল হয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যপাল, কূটনীতিবিদ থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র জগতের ব্যাক্তিত্ব, শিল্পী তথা শিল্পপতি, পুস্তকপ্রেমী, লোকসঙ্গীতশিল্পী সহ বহু সংস্কৃতিমনস্ক মানুষ।
“এইবছর কোভিড মহামারীর কারণে ঢাক উৎসব ও সিঁদুরখেলা উদযাপিত হবেনা। তাই শিল্পচেতনা ও আধ্যাত্মিকতায় সমৃদ্ধ ব্যাতিক্রমী কিছু করার পরিকল্পনা থেকেই এই ছোট দৈর্ঘ্যের ছবির কথা মাথায় আসে” জানান মানিকতলা চালতাবাগান লোহাপট্টি দুর্গাপুজা কমিটির চেয়ারম্যান শ্রী সন্দীপ ভূতোড়িয়া।
ফিল্মে চিত্রায়িত হয়েছে মা দুর্গাকে দেবতারা যে দশটি অস্ত্র প্রদান করেছিলেন তার আখ্যান। যথা- খড়গ, ত্রিশূল, সুদর্শন চক্র, বজ্র, তীর ধনুক, অগ্নি, শঙ্খ, পদ্ম, গদা এবং সর্প। ফিল্মের শুরুতেই দেখা যাবে একজন নারীকে চন্ডীপাঠ করতে এবং ছোট্ট এক বালিকাকে দুর্গারূপে। মা দুর্গার দশটি অস্ত্র উপস্থাপিত হবে দশজন নারীর মাধ্যমে। অস্ত্রের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী তারা পৃথকভাবে পারফর্ম করবেন। শেষে ছোট্ট বালিকাকে যখন দশটি অস্ত্র নিবেদন করা হবে সে হয়ে উঠবে দশভূজা দেবী দুর্গা। চালতাবাগানের বিগত বছরের পূজার কিছু ঝলক চোখে পড়বে ফিল্মটির শুরু ও শেষের দিকে।
মা দুর্গার দশটি অস্ত্র হিসাবে অংশ নিতে দেখা যাবে নৃত্য ও বিনোদন জগতের পরিচিত তারকাদের, – অনন্যা চট্টোপাধ্যায়, ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌরসেনী মৈত্র, দেবলীনা কুমার, জয়া শীল ঘোষ, জুন মালিয়া, কনীনিকা ব্যানার্জী, ডঃ নন্দনী ভৌমিক, প্রীতি প্যাটেল, পৌলমী দাস, শিঞ্জিনী কুলকার্ণি ও সৌমিলী বিশ্বাসকে। একইসঙ্গে ‘দশভূজা’ উপস্থাপন করতে চলেছে রম্যানি মন্ডলকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *