এবারও মাধ্যমিকে মেধাতালিকায় জেলার জয়জয়কার

এবারও মাধ্যমিকে মেধাতালিকায় জেলার জয়জয়কার

আনন্দ সংবাদ লাইভ :এবছরের মাধ্যমিকের ফল আজ প্রকাশিত হল।পরীক্ষার ১৩৯ দিনের মাথায় প্রকাশ পেল এবছরের মাধ্যমিকের ফলাফল। পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের দফতরে আনুষ্ঠানিক ভাবে মেধা তালিকা প্রকাশ করেন পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়।

এবারও মাধ্যমিকে মেধাতালিকায় জেলার জয়জয়কার। মাধ্যমিকে প্রথম হয়েছে পূর্ব বর্ধমানের মেমারি বিদ্যাসাগর স্মৃতি বিদ্যামন্দিরের ছাত্র অরিত্র পাল। তার প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৪। অর্থাৎ ৯৯.১৪ শতাংশ নম্বর পেয়েছে অরিত্র।অরিত্র বাংলায় পেয়েছে ৯৮ নম্বর,ইংরেজিতে ৯৯,গণিতে ১০০,ভৌতবিজ্ঞানে ৯৮,জীবন বিজ্ঞানে ৯৯,ইতিহাসে ১০০,ভূগোলে ১০০ ।

দ্বিতীয় স্থানাধিকারী দু’জন। ৬৯৩ পেয়েছে বাঁকুড়ার ওন্দা হাইস্কুলের সায়ন্তন গড়াই ও পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ার কাশীরাম দাস ইন্সটিটিউশনের ছাত্র অভীক দাস।তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে তিনজন।
বাঁকুড়ার কেন্দুয়াডিহি হাইস্কুলের ছাত্র সৌম্য পাঠক, পূর্ব মেদিনীপুরের ভবানীচক হাইস্কুলের দেবস্মিতা মহাপাত্র ও উত্তর ২৪ পরগনার রহড়া রামকৃষ্ণ মিশন বয়েজ হোমের ছাত্র অরিত্র মাইতি।তিনজনেরই প্রাপ্ত নম্বর ৬৯০।
চতুর্থ হয়েছে বীরভূম জেলা স্কুলের পড়ুয়া অগ্নিভ সাহা।তার প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৯।পঞ্চম হয়েছে ৪ জন। বংশীহারি হাইস্কুলের ছাত্র অঙ্কিত সরকার, স্বস্তিক সরকার, রশ্মিতা সিনহা মহাপাত্র, বিভা বসু মণ্ডল।
ষষ্ঠ হয়েছে ১২ জন।শিলিগুড়ি গার্লস হাইস্কুলের রিঙ্কিনি ঘটক। রায়গঞ্জ করোনেশন হাইস্কুলের অর্চিস্মান সাহা রাজিবুল ইসলাম, বাঁকুড়া খ্রিস্টান কলেজিয়েট স্কুলের সৃজন সাহা, দক্ষিণচক হাইস্কুলের অরিজিৎ গুহ রায়, সপ্তর্ষি জানা, অশোকনগর বাণীপীঠ গার্লস হাইস্কুলের অস্মি চৌধুরি। হাওড়ার সৌহার্দ পাত্র। তাদের প্রাপ্ত নম্বর: ৬৮৭। সপ্তম হয়েছে ১৭ জন। করণ দত্ত, ঋতম বর্মন, সোহম তামাং, অরণী চট্টোপাধ্যায়, অরিত্র মাঝি, সাগ্নিক মিত্র কেন্দুয়া, বর্ধমান সিএমএইচ হাইস্কুলের শৌভিক সরকার, দিব্যকান্তি ঘোড়ই, সম্প্রীতি কুণ্ডু, পিয়াস প্রামাণিক, সাহিত্য মণ্ডল, শহিদ মহম্মদ শামিম।
অষ্টম হয়েছে ১১ জন। তাদের প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৫। তালিকায় রয়েছে নাসমিন আজাদ, মহম্মদ তাহিনুজ্জামান, সুপ্রতীক পণ্ডিত, অঙ্কিতা ঘোষ, শুভঙ্কর মাইতি-সহ আরও অনেকে। নবম স্থানাধিকারী অনেকেই। তাদের প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৪।মাধ্যমিকে দশম স্থানাধিকারীরা পেয়েছেন ৬৮৩ নম্বর।

এবারের মাধ্যমিকে মোট পরীক্ষার্থীর নাম নথিভুক্ত ছিল ১০,১৭,২৬১।পরীক্ষা দেয় ১০,০৩,৬৬৬ জন। পাশ করেছে ৮,৪৩,৩০৫ জন। পাশের হার ৮৬.৩৪ শতাংশ। পাশের হারে রেকর্ড হয়েছে এবার। পরীক্ষার্থীর সংখ্যা মেয়েদের বেশি হলেও পাশের হারে এগিয়ে রয়েছে ছেলেরা। ছেলেদের পাশের হার ৮৯.৮৭ শতাংশ। মেয়েদের পাশের হার ৮৩.৪৮ শতাংশ।
মেধাতালিকায় মোট ৮৪ জনের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। তবে এই তালিকায় নেই কলকাতার কোনও পড়ুয়া। ২২ জুলাই রাজ্যের ৪৯টি কেন্দ্র থেকে মার্কশিট বিলি করা হবে।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *